Logo
নোটিশ :

আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বগতম>>তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে  সাথে থাকুন  ধন্যবাদ।

উখিয়ায় অবাধ্য মেয়ে ও জামাতার বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করলেন হামলার শিকার বিধবা নুর বানু

নিজস্ব প্রতিনিধি।। / ৫৯ বার
আপডেট সময় : সোমবার, ৮ মার্চ, ২০২১

 

কক্সবাজারের উখিয়ায় অবাধ্য মেয়ে ও জামাতাদের নির্যাতনের শিকার হয়ে ৪ জনের বিরুদ্ধে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা করেছে বিধবা নুর বানু। যার মামলা নম্বর ১০৫/২০২১।

নির্যাতিত নুর বানু পালংখালী ৬নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা সাবেক বিজিবি সদস্য মৃত দরবেশ আলীর স্ত্রী।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৩টায় তার বসতঘরে তেলখোলা এলাকার মোস্তাক আহমদের স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস (ত্যাজ্য কন্যা), মো: সোহেলের স্ত্রী খালেদা আকতার (২৮), নুরুল আমিন স্ত্রী জয়নব আকতার (২৫), সেকান্দর আলীর ছেলে মোস্তাক আহমদ (৩০) দুর্দান্ত বেয়াদব গর্ভজাত কন্যা ও জামাতা হয়।

নুর বানু জানায়, তার স্বামী মৃত্যুর পর অতিকষ্টে মেয়েদের লালন-পালন করেছেন। কিন্তু তারা সাবালক হওয়ার পর থেকে বাধা নিষেধ অমান্য করে খারাপ বন্ধু-বান্ধবীদের মিশে মিশে খারাপ হয়ে যায় এবং নিজেদের ইচ্ছানুযায়ী বহু বিবাহ করে। তাই ১০/২/২০২০ ইং ১নং আসামীকে ত্যাজ্য কন্যা ঘোষনা করা হয়। এরপর থেকে আসামীগণ তার উপর ক্ষিপ্ত ছিল।

তিনি আরো বলেন, ঘটনার দিন আসামীগণ এক দলবদ্ধ হয়ে অশ্রাব্য ভাষায় গালি দিতে থাকে। কারণ জানতে চাইলে ১নং আসামী কোদাল দিয়ে তাকে হত্যার উদ্দ্যেশে মাথায় সজোরে আঘাত করলে বাম হাত দিয়ে ঠেকাইলে কব্জিতে পড়ে হাঁড়ভাঙ্গা জখম করে। অপরাপর আসামীরা লাঠি দিয়ে আঘাত এবং তলপেটে আভ্যন্তরীণ জখমসহ গলা চেপে শ্বাসরুদ্ধ হত্যার চেষ্টা করে। এছাড়াও বাড়িতে থাকা স্বামীর পেনশন ভাতা বাবদ নগদ ২৫ হাজার টাকা এবং ৩ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। পরে আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় আইনের আশ্রয় নেয়ায় আসামীগণ তাকে হত্যা করে লাশ গুম করার হুমকি দিচ্ছে এমনটি জানিয়েছেন শংকিত নুর বানু।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর