Logo
শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে স্কাসের কার্যক্রম পরিদর্শন করলেন উপআনুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো ডিজি ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দেশীয় অস্ত্রসহ ১৪ রোহিঙ্গা গ্রেপ্তার উখিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় গ্রাম্য চিকিৎসক আহত নেতাকর্মীদের ভালোবাসায় সিক্ত এম এ মন্জুর ভালোবাসায় সিক্ত হন অধ্যক্ষ মো. শাহ আলম নৌকার মনোনয়ন নিয়ে এসে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত চেয়ারম্যান টিপু সুলতান রাজাপালংয়ে নৌকার প্রার্থী জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর সমর্থনে শোকরানা ও পথ সভা অনুষ্ঠিত খরুলিয়ার গণি বৈরাগী সোয়া ৯ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেফতার উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে আবারো প্রার্থী হয়েছি : ইঞ্জিনিয়ার হেলাল উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ
নোটিশ :

আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বগতম>>তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে  সাথে থাকুন  ধন্যবাদ।

বদিকে বাবা ডেকে মনের ‘আগুন’ নেভাতে চান ইসহাক

জসিম উদ্দীন।। / ২৩২ বার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২১

 

কক্সবাজারের উখিয়া-টেকনাফ আসনের সাবেক এমপি আবদুর রহমান বদিকে জন্মদাতা পিতা দাবি করে ইসহাক নামের এক যুবক মামলা করেছিলেন। সেই মামলায় সমন জারির আদেশের পর আজ বৃহস্পতিবার ধার্য দিনে আদালতে বদির উপস্থিত থাকার কথা ছিল। কিন্তু তিনি আদালতে যাননি।

এসব তথ্য জানিয়েছেন বাদী পক্ষের আইনজ জীবী কপিল উদ্দীন চৌধুরী। তিনি সাংবাদিকদের জানান, আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতের জারি করা সমন এখনো ফেরত আসেনি। তাই মামলার নির্ধারিত দিনে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়নি। সমন ফেরত না আসায় আসামি সময় পেয়েছেন। জারি করা সমন ফেরত আসার পর আদালতের পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানা যাবে।

এদিকে মামলার আসামি আবদু রহমান বদি আদালতে উপস্থিত না হলেও উপস্থিত ছিলেন মামলার বাদী মো. ইসহাক ও তার মা, বদির প্রথম স্ত্রী দাবিদার সুফিয়া খাতুন।

ইসহাক বলেন, আমার বাবার সাথে সামনাসামনি দেখা হয় না অনেকদিন। তাই বুকভরা আশা নিয়ে আমি আদালতে উপস্থিত হয়েছিলাম। ভেবেছিলাম আমার বাবা সাবেক এমপি আবদুর রহমান বদি সাহেব আদালতে আসবেন। কিন্তু তিনি না আসায় আমি হতাশ।

তিনি আরও বলেন, ওনার কাছ থেকে আমি সহায়-সম্পদ চাই না। আমি শুধু আমার পিতৃ পরিচয় ও পিতার অধিকার চাই। আমি জন্মদাতাকে (বদিকে) বাবা ডেকে মনের আগুন নেভাতে চাই।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের ১৩ ডিসেম্বর টেকনাফ পৌরসভার কায়ুকখালী পাড়ার ২৭ বছর বয়সী যুবক মোহাম্মদ ইসহাক বদিকে নিজের বাবা দাবি করে টেকনাফের সহকারী জজ আদালতে মামলা দায়ের করেন।

বাদী এজাহারে উল্লেখ করেন, ৩০ বছর আগে টেকনাফ পৌরসভার ইসলামাবাদ ধুমপাড়ার বাসিন্দা আবুল বশরের মেয়ে বাদীর মা সুফিয়া খাতুনকে বিয়ে করেন বদি। সেই সূত্রেই বদির প্রথম ছেলে তিনি।

মামলায় বদি ছাড়াও বিবাদী করা হয়েছে বদির চাচা টেকনাফের পৌর মেয়র হাজী মোহাম্মদ ইসলামকে। ওই দিন মামলাটি আমলে নিয়ে মূল বিবাদী আব্দুর রহমান বদিসহ বিবাদীদের ১৪ জানুয়ারি আদালতে উপস্থিত হয়ে বক্তব্য দেওয়ার আদেশ দিয়েছিলেন বিচারক।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর