Logo
শিরোনাম :
উখিয়ায় ২জন চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ১৪জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার ক্লাইমেট চেন্জে বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ বাংলাদেশ : স্কাস চেয়ারম্যান জেসমিন প্রেমা উখিয়ায় ৬ খুনের ঘটনায় গ্রেফতার ৪ উখিয়ায় সমাজ কল্যাণ ও উন্নয়ন সংস্থা (স্কাস)’র কমিউনিটি রিসোর্স সেন্টার উদ্বোধন জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর সর্মথনে এক নির্বাচনী মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ৬ রোহিঙ্গা হত্যার ঘটনায় ১০ জন আটক রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৬ খুনের ঘটনায় থানায় মামলা বিএফইউজের নেতৃত্বে ফারুক-দীপ, সর্বোচ্চ ভোটে সদস্য হলেন দেশ রূপান্তরের সুইটি রোহিঙ্গা নেতা মহিবুল্লাহ হত্যায় সরাসরি অংশ নিয়েছে আজিজুল চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী জামী চৌধুরীর ব্যাপক গণসংযোগ
নোটিশ :

আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বগতম>>তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে  সাথে থাকুন  ধন্যবাদ।

রাজশাহীর নাটকীয় জয়

উখিয়া কন্ঠ  ডেস্ক / ২৪৫ বার
আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০

 

শেষ দুই ওভারে ম্যাচ জিততে ঢাকার চাই ৩০ রান। ব্যাটসম্যান মুক্তার আলী তিন ছক্কায় ফরহাদ রেজার করা ১৯ নম্বর ওভারে তুলে নিলেন ২১ রান। শেষ ওভারে জয়ের প্রয়োজন কমে দাড়াল মাত্র ৯।

কিন্তু সেই মাত্রকে যে অনেক বড়কিছু প্রমাণ করে দিলেন স্পিনার মেহেদি হাসান। শেষ ওভারের পুরোটা মোকাবেলা করলেন মুক্তার আলী। এর মধ্যে একটি বিতর্কিত ‘নো বল’ও পেয়ে গেলেন বোনাস হিসেবে। কিন্তু ব্যাটে মাত্র ৫ রানের বেশি তুলতেই পারলেন না। সেই পাঁচ এবং নো বলে এক রান-এই অর্জনে ঢাকা শেষ ওভারে তুলল মোটে ৬ রান। ম্যাচ হারল ২ রানে।স্পিনার মেহেদি হাসান ম্যাচের শেষ ওভারে যা করলেন সেটা অনেক দিনের জন্য উদাহরণ হয়ে রইল। প্রথম তিন বলে তিনি কোন রানই দিলেন না। প্রথম দুই বল মুক্তার আলীর প্যাডে। তৃতীয় বল অফস্ট্যাম্পে। কিন্তু কোনটিতেই মুক্তার ব্যাট লাগাতে পারলেন না! চতুর্থ বলে লেগসাইডে একটা বাউন্ডারি পেলেন।

পঞ্চম বলে স্ট্যাম্পিংয়ের আবেদন উঠলো। কিন্তু আম্পায়ার ডেলিভারি চেক করতে গিয়ে জানালেন ওটা নো বল ছিল! মেহেদি ওভার স্টেপিং করেছেন। তবে টিভি রিপ্লেতে পরিস্কার দেখা গেল, ল্যান্ডিংয়ের পরপরই মেহেদির বামপায়ের কিছু অংশ দাগের পেছনেই রয়েছে। কিন্তু টিভি আম্পায়ারের বাঁকা সিদ্ধান্ত। তবে সেই নো বল থেকে পাওয়া ফ্রিহিটের ডেলিভারিও ব্যাটে লাগাতে পারলেন না মুক্তার আলী। শেষ বলে জয়ের প্রয়োজন পড়ল ৪ রানের। সেই বলে সিঙ্গেলের বেশি তুলতে পারলেন না মুক্তার। রাজশাহী ম্যাচ জিতল ২ রানে। পুরো ওভার ব্যাটিংয়ের অপরপ্রান্তে দাড়িয়ে দেখে গেলেন ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান। দারুণ গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ব্যাটিংয়ে নেমে সাব্বির ৭ বলে অপরাজিত ৫ রান করে একটা সম্ভাবনা নষ্ট করলেন!

আর ৩ ছক্কা ও ১ বাউন্ডারিতে ১৬ বলে মুক্তার আলীর সংগ্রহ হার না মানা ২৭। কিন্তু দল যে হেরে গেল তার শেষ ওভারের ব্যাটিং ব্যর্থতায়।

ব্যাটিংয়ে ৫০ রান করে রাজশাহীর নায়ক ছিলেন মেহেদি হাসান। শেষ ওভারে নাটকীয় কায়দায় দলকে জিতিয়ে ম্যাচের নায়ক সেই তিনিই! ম্যাচ সেরার ৫০ হাজার টাকার চেকে তার নামই লেখা হলো।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

রাজশাহী: ১৬৯/৯ ( আনিসুল ৩৫, মেহেদি হাসান ৫০, সোহান ৩৯, মুক্তার আলী ৩/২২)।

ঢাকা: ১৬৭/৫ (২০ ওভাওে, তানজিদ ১৮, নাঈম ২৬, মুশফিক ৪১, আকবর আলী ৩৪, সাব্বির ৫*, মুক্তার আলী ২৭*, মেহেদি ১/২২, এবাদত ১/৩৬, আরাফাত সানি ১/৩৮, ফরহাদ রেজা ১/৩৩)।

ফল: মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী ২ রানে জয়ী।

ম্যাচ সেরা: মেহেদি হাসান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর