Logo
শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে স্কাসের কার্যক্রম পরিদর্শন করলেন উপআনুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো ডিজি ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দেশীয় অস্ত্রসহ ১৪ রোহিঙ্গা গ্রেপ্তার উখিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় গ্রাম্য চিকিৎসক আহত নেতাকর্মীদের ভালোবাসায় সিক্ত এম এ মন্জুর ভালোবাসায় সিক্ত হন অধ্যক্ষ মো. শাহ আলম নৌকার মনোনয়ন নিয়ে এসে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত চেয়ারম্যান টিপু সুলতান রাজাপালংয়ে নৌকার প্রার্থী জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর সমর্থনে শোকরানা ও পথ সভা অনুষ্ঠিত খরুলিয়ার গণি বৈরাগী সোয়া ৯ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেফতার উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে আবারো প্রার্থী হয়েছি : ইঞ্জিনিয়ার হেলাল উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ
নোটিশ :

আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বগতম>>তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে  সাথে থাকুন  ধন্যবাদ।

টেকনাফ বিজিবি অভিযান চালিয়ে ৩০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১২৬ বার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১২ নভেম্বর, ২০২০

টেকনাফের লেদা বিওপি’র ছ্যুরিখাল এলাকায় অভিযান চালিয়ে নব্বই লাখ টাকা মূল্যের ত্রিশ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

১২ নভেম্বর বৃহস্পতিবার রাতে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) এর টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২ বিজিবি) এর অধীনস্থ লেদা বিওপি’র বিশেষ টহলদল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে লেদা বিওপি’র দায়িত্বপূর্ণ এলাকার ছ্যুরিখাল হতে ৫০০ গজ দক্ষিণে লবণ মাঠ সংলগ্ন এলাকায় গোপনে অবস্থান গ্রহণ করে। টহলদল একজন দুষ্কৃতিকারী ব্যক্তিকে লেদা বিওপি হতে ০১ কিঃ মিঃ দক্ষিণ-পূর্বদিকে টেকনাফ-কক্সবাজার প্রধান সড়ক হতে ৬০০ গজ পূর্বে ছ্যুরিখাল সংলগ্ন লবণের মাঠ দিয়ে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের দিকে গমন করতে দেখে।

বিজিবি’র টহলদল তাৎক্ষণিক অবৈধ অনুপ্রবেশকারী ব্যক্তিকে ধরার জন্য লবণ মাঠে প্রবেশ করে তাকে চ্যালেঞ্জ করে। উক্ত ব্যক্তি দূর হতে বিজিবি টহলদলের উপস্থিতি বুঝতে পেরে কয়েক রাউন্ড গুলিবর্ষণ করে। এমতাবস্থায় টহলদল নিজেদের জান ও মাল রক্ষার স্বার্থে পাল্টা গুলি বর্ষণ করে। বিজিবি’র পাল্টা গুলিবর্ষণে চোরাকারবারী ভীত হয়ে অন্ধকারের সুযোগ নিয়ে লবণ মাঠ এলাকা দিয়ে দ্রুত রাস্তা অতিক্রম করে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পালিয়ে যায়।

পরে ঐ ঘটনাস্থলে তল্লাশী করে ইয়াবা পাচারকারীর ফেলে যাওয়া একটি পলিথিনের ব্যাগ উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত ব্যাগের ভিতর নব্বই লাখ টাকা মূল্যের ত্রিশ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়। ইয়াবা কারবারীকে আটকের নিমিত্তে বর্ণিত এলাকা ও নদীর তীরসহ পার্শ্ববর্তী স্থানে পরবর্তী তিন ঘন্টা যাবৎ অভিযান পরিচালনা করা হলেও কোন পাচারকারী/তার সহযোগীকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে সনাক্ত করার জন্য অত্র ব্যাটালিয়নের গোয়েন্দা কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

উদ্ধারকৃত মালিক বিহীন ইয়াবাগুলো বর্তমানে ব্যাটালিয়ন সদরের ষ্টোরে জমা রাখা হবে এবং প্রয়োজনীয় আইনী কার্যক্রম গ্রহণ পরবর্তীতে তা উর্দ্ধতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর