Logo
শিরোনাম :
র‍্যাব ৯ এর হাতে ধরা পড়লো মাদক কারবারি জাকির চট্টগ্রাম থেকে ভাসানচরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিল ১৬৪৫ রোহিঙ্গা ঐতিহ্যবাহী মেজবান খেয়ে ভাসানচরের উদ্দেশ্যে রোহিঙ্গাদের যাত্রা সত্তরের দশক থেকে এদেশে পালিয়ে আসা শুরু করে রোহিঙ্গারা   ডিএনসির অভিযানে এক মাদক ব্যবসায়ী আটক,পলাতক-১ ঘুমধুমের দফাদার ছৈয়দ অালম ইয়াবাসহ আটক জাতির পিতার সোনার বাংলার’ স্বপ্ন’ আজ বাস্তবতা: সেনা প্রধান অাগামি রবিবারে পার্বত্যমন্ত্রী আসছেন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারীতে প্রথমদিনে ২০ বাসে হাজার রোহিঙ্গা ভাসানচরের উদ্দেশ্যে যাত্রা উখিয়া থেকে ভাসানচরের উদ্দেশ্যে রওনা দিছে রোহিঙ্গা ভর্তি ২০টি বাস
নোটিশ :

আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বগতম>>তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে  সাথে থাকুন  ধন্যবাদ।

প্রেসিডেন্টস কাপের শিরোপা জিতলো মাহমুদউল্লাহ একাদশ

উখিয়া কন্ঠ  ডেস্ক / ৬১ বার
আপডেট সময় : রবিবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২০

বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের ফাইনালে নাজমুল একাদশকে ৭ উইকেটে হারিয়ে শিরোপা জিতেছে মাহমুদউল্লাহ একাদশ। লিটন দাসের অনবদ্য অর্ধশতকে ১২৩ বল ও ৭ উইকেট হাতে রেখেই ১৭৪ রানের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছে যায় মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতে মুমিনুল হককে হারাতে হলেও মাহমুদুল হাসান জয়কে নিয়ে প্রতিরোধ গড়ে তোলেন লিটন দাস। ৩২ বলে ১৮ রানের ইনিংস খেলে জয় বিদায় নিলে ক্রিজে আসেন ইমরুল কায়েস। তার সঙ্গ কাজে লাগিয়ে লিটন পূর্ণ করেন অর্ধশতক।তবে ৬৯ বলে ৬৮ রান করে লিটনও জয়ের মত নাসুমের শিকারে পরিণত হন। তার আগে হাঁকান দৃষ্টিনন্দন ১০টি চার। তার বিদায়ের পর ইমরুলকে সঙ্গে নিয়ে জয়ের পথে এগোতে থাকেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। শেষপর্যন্ত ইমরুলকে নিয়ে জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছাড়েন। ১টি চার ও ৫টি ছক্কা হাঁকানো ইমরুল ৫৪ বলে ৪৭ রান করে অপরাজিত থাকেন। ৩টি চার ও ১টি ছক্কায় ১১ বলে ২৩ রান করে অপরাজিত থাকেন শিরোপাজয়ী অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে নাজমুল একাদশ। দলীয় ৪ রানেই সাইফ হাসানকে সাজঘরে ফেরান রুবেল হোসেন। এরপর সুমন খানের বোলিং তোপে একে একে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন মুশফিকুর রহিম, সৌম্য সরকার ও নাজমুল হোসেন শান্ত। বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকতে পারেননি আফিফ হোসেন ধ্রুবও।

তবে তৌহিদ হৃদয়কে নিয়ে প্রতিরোধের চেষ্টা করেন ফর্মে থাকা ইরফান শুক্কুর। হৃদয় সাজঘরে ফিরলে দলের বাকি ব্যাটসম্যানরাও ব্যস্ত ছিলেন যাওয়া-আসায়। তবে শেষপর্যন্ত লড়াই করে গেছেন শুক্কুর। শেষপর্যন্ত তার ইনিংসে ভর করে ১৭৩ রানের পুঁজি জড়ো করে নাজমুল একাদশ। ৭৭ বলের মোকাবেলায় দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৫ রান করেন শুক্কুর।এছাড়া শান্ত ৩২ ও হৃদয় ২৬ রান করেন। মাহমুদউল্লাহ একাদশের পক্ষে সুমন খান পাঁচটি, রুবেল হোসেন দুটি এবং মেহেদী হাসান মিরাজ, এবাদত হোসেন ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ একটি করে উইকেট শিকার করেন।

স্কোরকার্ড

টস : মাহমুদউল্লাহ একাদশ

নাজমুল একাদশ : ১৭৩/১০ (৪৭.১ ওভার)

সাইফ ৪ (৫), সৌম্য ৫ (১১), শান্ত ৩২ (৫৭), মুশফিক ১২ (৩৭), আফিফ ০ (২), হৃদয় ২৬ (৫৩), শুক্কুর ৭৫ (৭৭), নাঈম ৭ (১৮), নাসুম ৩ (১৫), তাসকিন ১ (৬), আল আমিন ২* (১)

রুবেল ৮-২-২৭-২, সুমন ১০-০-৩৮-৫, এবাদত ৮.১-১৮-১, মিরাজ ৯-০-৩৯-১, বিপ্লব ৫-০-২১-০, মাহমুদউল্লাহ ৭-০-২৮-১

মাহমুদউল্লাহ একাদশ : ১৭১/৩ (২৯.৩ ওভার)

লিটন ৬৮ (৬৯), মুমিনুল ৪ (১২), জয় ১৮ (৩২), ইমরুল ৪৭* (৫৪), মাহমুদউল্লাহ ২৩* (১১)

তাসকিন ৭-০-৪৫-০, আল আমিন ৬-১-৩২-১, নাসুম ১০-০-৪৮-২, রাহী ২-০-৭-০, নাঈম ৪.৩-০-৩৮-০

ফল : মাহমুদউল্লাহ একাদশ ৭ উইকেটে জিতে চ্যাম্পিয়ন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর