Logo
শিরোনাম :
উখিয়ায় ২জন চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ১৪জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার ক্লাইমেট চেন্জে বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ বাংলাদেশ : স্কাস চেয়ারম্যান জেসমিন প্রেমা উখিয়ায় ৬ খুনের ঘটনায় গ্রেফতার ৪ উখিয়ায় সমাজ কল্যাণ ও উন্নয়ন সংস্থা (স্কাস)’র কমিউনিটি রিসোর্স সেন্টার উদ্বোধন জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর সর্মথনে এক নির্বাচনী মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ৬ রোহিঙ্গা হত্যার ঘটনায় ১০ জন আটক রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৬ খুনের ঘটনায় থানায় মামলা বিএফইউজের নেতৃত্বে ফারুক-দীপ, সর্বোচ্চ ভোটে সদস্য হলেন দেশ রূপান্তরের সুইটি রোহিঙ্গা নেতা মহিবুল্লাহ হত্যায় সরাসরি অংশ নিয়েছে আজিজুল চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী জামী চৌধুরীর ব্যাপক গণসংযোগ
নোটিশ :

আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বগতম>>তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে  সাথে থাকুন  ধন্যবাদ।

উখিয়ায় সক্রিয় মাদক কারবারীরা

ইমরান আল মাহমুদ, উখিয়া: / ২১৭ বার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০২০

উখিয়ায় স্বাভাবিকভাবে চলছে ইয়াবা পাচার,বিক্রি,সেবনসহ নানা অপরাধ অপকর্ম। নেপথ্যে রয়েছে নতুন ও পুরাতন বিশাল সিন্ডিকেট। প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের বদলী ও ব্যস্ততার সুযোগে সক্রিয় হয়ে উঠেছে মাদককারবারিরা। জানা যায়, উখিয়া উপজেলার আনাচে কানাচে রয়েছে শক্তিশালী সিন্ডিকেট। তারা বিভিন্ন কৌশলে ইয়াবাসহ মাদকদ্রব্য পাচারে তৎপর ভূমিকায় অটুট রয়েছে। গত ১৩ই অক্টোবর কক্সবাজার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অভিযানে সাড়ে চার হাজার ইয়াবাসহ সোনারপাড়া এলাকার রহমত শরীফকে আটক করা হয়েছে। বিভিন্ন সময় অাইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে গুটি কয়েক পাচারকারী আটক হলেও মূল গডফাদাররা থেকে যাচ্ছে ধরাছোঁয়ার বাইরে। ইয়াবার গডফাদাররা পাচারকাজে ব্যবহার করছে যুবতী ও মহিলাদের। তবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা মাদক পাচার রোধে কঠোর অবস্থানে থাকলেও বিভিন্ন কৌশলে পাচার হচ্ছে ইয়াবার বিশাল বিশাল চালান।
উখিয়ায় বিগত কয়েক মাস যাবত অসংখ্য খুনের ঘটনা সংঘটিত হয়েছে। জালিয়াপালংয়ের বিভিন্ন স্থানে, হলদিয়াপালংয়ের মনি মার্কেট সহ বিভিন্ন এলাকায় খুন,আত্নহত্যা,পিটিয়ে হত্যাসহ নানা অপরাধ সংঘটিত হয়েছে। আবার,বিভিন্ন এলাকার আনাচে কানাচে জুয়া খেলার প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে। সারাদিনের কষ্টে অর্জিত টাকায় জুয়া খেলাতে অনেকেই নিঃস্ব হয়ে যাচ্ছে এসব অপকর্মে লিপ্ত হয়ে। যার ফলে বাড়ছে অপরাধ প্রবণতা। সংঘটিত হচ্ছে চুরি,ছিনতাই,ডাকাতিসহ নানা অপরাধ।
এসব মাদককারবারীরা হঠাৎ আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনে যাওয়ায় এলাকায় দেখা দিয়েছে বিরূপ প্রতিক্রিয়া। তাদের বিপুল অবৈধ অর্থের কাছে জিম্মি এলাকার সাধারণ মানুষ। ইয়াবার গডফাদাররা বিপুল বিত্তশালী হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে চাইনা কেউই।
তবে অধিকাংশ ইয়াবা পাচারকারীরা পুনরায় আগের মতো অবৈধ পন্থায় জীবনযাপন অব্যাহত রেখেছে। যার ফলে যুব ও ছাত্র সমাজ মরণনেশার ছোবলে পড়ে ধ্বংসের পথে চলে যাচ্ছে।
মাদক পাচারের বিষয়ে জানতে চাইলে উখিয়া থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ আহমেদ সনজুর মোর্শেদ জানান, উখিয়া উপজেলায় মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অব্যাহত থাকবে। তবে মাদক ব্যবসায়ীরা স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে চাইলে তাদের আইনি সহায়তা প্রদান করা হবে বলে জানান তিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর