Logo
নোটিশ :

আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বগতম>>তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে  সাথে থাকুন  ধন্যবাদ।

পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ ঘোষণা করলো ভারত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ / ৩৬ বার
আপডেট সময় : সোমবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

দুর্গাপূজা উপলক্ষে সরকার বন্ধুত্ব ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক জোরদার করতে ভারতকে ইলিশ আমদানির সুযোগ দিলেও সংকট দেখিয়ে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ ঘোষণা করেছে ভারত। গেল বছরেও পূজা উপলক্ষে যেদিন ভারত সরকারকে ৫০০ মে. টন ইলিশ দেওয়া হয় ঠিক সেদিনই বাংলাদেশে বন্ধ করা হয়েছিল পেঁয়াজের রফতানি।

সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বেনাপোল বন্দর দিয়ে ইলিশের চালান ঢোকার পর পরই হঠাৎ করে বিকাল থেকে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেয় ভারতের পেট্রাপোল কাস্টমস। এতে বেনাপোল বন্দরে প্রবেশের অপেক্ষায় পেট্রাপোল বন্দরে প্রায় শতাধিক পিয়াজ বোঝায় ট্রাক আটকা পড়ে। ফলে পচনশীল পণ্য নিয়ে বেকায়দায় পড়েছেন আমদানিকারকেরা।

জানা যায়, দেশে ইলিশ উৎপাদন কমে যাওয়ায় ২০১২ সালের পহেলা অক্টোবর বাণিজ্য মন্ত্রণালয় দেশের বাইরে ইলিশ রফতানি স্থাপিত করে। তবে এর পর থেকে বাইরের কোনো দেশে ইলিশ রফতানি না হলেও বন্ধুত্ব সম্পর্কের কারণে পূজা উপলক্ষে গত বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর ভারতকে ৫০০ মে. টন এবং এ বছর ১৪৫০ মে. টন ইলিশ আমদানির সুযোগ দেয়া হয়। সোমবার বিকালে ১৪৫০ মে. টন ইলিশের প্রথম চালানে দুই ট্রাক ইলিশ ভারতে ঢুকেছে। আগামী ১০ অক্টোবরের মধ্যে বাকি ইলিশ ঢুকবে। তবে দুই বারই দেখা গেছে যেদিন ইলিশ পাঠানো হয়েছে। ঠিক সেদিনই বাংলাদেশি মানুষের নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

ভারতের পেট্রাপোল সিঅ্যান্ডএফ স্টাফ এ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কার্তিক চন্দ্র জানান, সকাল ৯টায় এক ট্রাক পেঁয়াজ বাংলাদেশে ঢোকে। এর পর কাস্টমস পেঁয়াজ রফতানিতে বাঁধা দেয়। তবে প্রাথমিকভাবে যেটা জানা গেছে, ভারতের যেসব অঞ্চল থেকে পেঁয়াজ আসে সেখানে বন্যায় ফসলের ক্ষেত তলিয়ে গেছে। এতে সংকট দেখা দেওয়ায় আপাতত দেশের বাইরে পিয়াজ যাচ্ছে না। তবে সংকট কাটলে যেকোনো সময় এ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হতে পারে।

বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক (ট্রাফিক) মামুন কবীর তরফদার জানান, পিয়াজ আমদানি সহজ করতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একটি প্রতিনিধি দল সোমবার দুপুরে বেনাপোল বন্দরে বৈঠক করেন। কিন্তু বিকালের পর হঠাৎ করে বিভিন্ন মাধ্যমে জানা যায় ভারত থেকে আর পেঁয়াজ ঢুকছে না। তবে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের বিষয়ে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ কোনো চিঠি দেয়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর