Logo
শিরোনাম :
উখিয়ায় ২জন চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ১৪জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার ক্লাইমেট চেন্জে বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ বাংলাদেশ : স্কাস চেয়ারম্যান জেসমিন প্রেমা উখিয়ায় ৬ খুনের ঘটনায় গ্রেফতার ৪ উখিয়ায় সমাজ কল্যাণ ও উন্নয়ন সংস্থা (স্কাস)’র কমিউনিটি রিসোর্স সেন্টার উদ্বোধন জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর সর্মথনে এক নির্বাচনী মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ৬ রোহিঙ্গা হত্যার ঘটনায় ১০ জন আটক রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৬ খুনের ঘটনায় থানায় মামলা বিএফইউজের নেতৃত্বে ফারুক-দীপ, সর্বোচ্চ ভোটে সদস্য হলেন দেশ রূপান্তরের সুইটি রোহিঙ্গা নেতা মহিবুল্লাহ হত্যায় সরাসরি অংশ নিয়েছে আজিজুল চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী জামী চৌধুরীর ব্যাপক গণসংযোগ
নোটিশ :

আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বগতম>>তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে  সাথে থাকুন  ধন্যবাদ।

আমি শুটিং স্পটেই বড় হয়েছি : দীঘি

বিনোদন ডেস্ক / ১৭০ বার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০

 

 

আসল নাম প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। শিল্পী দম্পতি সুব্রত-দোয়েলের মেয়ে দীঘি শিশু শিল্পী হিসেবে সাড়ে ৩ বছর বয়সে ক্যারিয়ার শুরু করেন। কিন্তু কাবুলিওয়ালার মিমি চরিত্রটি করার সময় সে ততোটা ছোট ছিল না। আরো বলা যায়, মিমি চরিত্রের অভিনেত্রী দীঘি এখন আর সেই ছোট্ট খুকীটি নেই। মিমির বড় হয়ে যাওয়া নিয়ে জেল-ফেরত রহমত যেমন চমকিত হয়েছে, তেমনি দীঘিও সকলকে চমকে দিয়ে দুই ছবির নায়িকা হিসেবে কাজ শুরু করেছেন। তিনি স্ট্যামফোর্ড স্কুল এ্যান্ড কলেজে উচ্চ মাধ্যমিকের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। তার অভিনীত দুটি ছবিরই পরিচালক শামীম আহমেদ রনি। শাপলা মিডিয়া প্রযোজিত ছবি দুটির মধ্যে রয়েছে টঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই এবং একাত্তরের ইতিহাস। দুটি ছবিতেই তার নায়ক প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার সেলিম খান তনয় শান্ত খান। শিশু শিল্পী হিসেবে তিন বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া দীঘির ধমনীতে প্রবহমান রয়েছে অভিনয়ের রক্ত। তার মা দোয়েল ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন শরৎ সাহিত্যের চন্দ্রনাথ দিয়ে। এই চরিত্রটিতে কলকাতায় নির্মিত চন্দ্রনাথে অভিনয় করেছেন সুচিত্রা সেন। তাকে সেই আদলে মেজেঘষে তৈরি করেছিলেন পরিচালক চাষী নজরুল ইসলাম। কিন্তু দীঘিকে কারো তৈরি করতে হয়নি। তিনি গড়ে উঠেছেন নিজের মধ্য থেকেই নিজের মতো করে। দীঘি বলেন, ‘মায়ের সঙ্গে তুলনীয় হতে চাই না। আমি শুটিং স্পট থেকে নিজের মধ্যেই গড়ে উঠেছি।’ দোয়েলের ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল শরৎ সাহিত্য দিয়ে আর দীঘির চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার শুরু হয়েছে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সাহিত্য দিয়ে। অর্থাৎ মা-মেয়ে দুজনেই সাহিত্য নির্ভর চলচ্চিত্র দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেছেন। দীঘির ক্যারিয়ার নিয়ে পিতা সুব্রত বলেন, ‘এ দুটি ছবি ছাড়াও আরো কয়েকটি আছে। সেগুলোর নাম এখনই বলতে চাই না।’ এফডিসির দুই নাম্বার ফ্লোরের মেইক-আপ রুমে বসেই দীঘির সঙ্গে কথা হচ্ছিল। দীঘি জানান, ২০০৬ সাল থেকে শিশু শিল্পী হিসেবে তিনি প্রায় ত্রিশটি ছবিতে অভিনয় করেছেন। এছাড়া বিজ্ঞাপনচিত্রও রয়েছে প্রায় পঁচিশটির মতো। ক্যামেরায় অভিজ্ঞ দীঘি বর্তমান নায়িকা সংকটে নির্মাতাদের জন্য একজন নির্ভরশীল তারকা হয়ে উঠতে পারবেন বলেই অনেকের বিশ্বাস।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর