Logo
নোটিশ :

আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বগতম>>তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে  সাথে থাকুন  ধন্যবাদ।

ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলায় জেল খাটছেন ইউপি সদস্য জামাল উদ্দিন

ডেস্ক রিপোট / ৬৫৫ বার
আপডেট সময় : রবিবার, ১৬ আগস্ট, ২০২০

 

বিশিষ্ট সংবাদকর্মী, হ্নীলা ইউনিয়ন মাদক নির্মূল কমিটির সদস্যও হ্নীলা ইউনিয়ন ৫নং ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার জামাল উদ্দিন টেকনাফের সাবেক ওসি প্রদীপের লেলিয়ে দেয়া দালাল চক্রের ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে দীর্ঘ ১৪ মাস যাবত জেল হাজতে কারাভোগ করছেন। গত ২১ জুন ২০১৯ সালে প্রতিদিনের ন্যায় দৈনন্দিন কাজ শেষ করে হ্নীলা স্টেশনে চায়ের দোকানে বসেছিলেন। হঠাৎ একটি নোহা গাড়ি থেকে নেমে সাদা পোশাকের ৪ জন লোক এসে তাকে ধরে নিয়ে যায়। তারপর ৩ দিন কোন খোঁজ খবর ছিলো না। তিন দিন পর টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ এসে মেম্বার জামাল উদ্দিন এর বসত বাড়িতে হামলা চালিয়ে দরজা ও আসবাবপত্র ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। যাওয়ার সময় বাড়ির লোকজন কে বলে কবর খুঁড়ে রাখতে।

একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে তাহার জনপ্রিয়তা ও হ্নীলা মাদক নির্মূল কমিউনিটির সদস্য হয়ে কাজ করায় কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে স্থানীয় কতিপয় ইয়াবা ব্যবসায়ী ও ওসির দালালদের কাছে। বিভিন্ন এলাকা মহল্লায় মাদকের বিরুদ্ধে কথা বলায় দালাল চক্র দের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ওসি প্রদীপ একজন মেম্বার কে ইয়াবা ব্যবসায়ী বানিয়ে অস্ত্র ও ইয়াবা পাচার মামলায় আটক দেখিয়ে জেল হাজতে পাঠায়।
ব্যক্তিজীবনে জামাল মেম্বার ছিলেন একজন সৎ রাজনীতিবিদ। তিনি সাবেক সফল ছাত্রনেতা ও হ্নীলা ইউনিয়নের সেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সফল সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তার পরিবারের সবাই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। তিনি হ্নীলা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিনের ছোট ভাই।গরীব দুঃখী মেহনতী মানুষের পরম বন্ধু অন্যায়ের বিরুদ্ধে বলিষ্ঠ কন্ঠস্বর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও উর্ধতন প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের নিকট আকুল আবেদন বর্তমান জনপ্রিয় জনপ্রতিনিধি, আওয়ামী রাজপথের লড়াকু সৈনিক জামাল উদ্দিন মেম্বারের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ পুনঃ তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নিয়ে দ্রুত মামলা হতে অব্যাহতি দেয়া হোক।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর