Logo
শিরোনাম :
বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ উখিয়ার ১২০এলাকায় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ সহায়তা প্রদান হোয়াইক্যং উলুবনিয়ায় পানিবন্দি ক্ষতিগ্রস্ত দের মাঝে ত্রাণ বিতরণ লঘুচাপের কারণে বৃষ্টি দুই-তিন দিন থাকতে পারে তর্কের জের ধরে কাঞ্জরপাড়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় ৩জন আহত টেকনাফ থানা পুলিশের অভিযানে ইয়াবাসহ দুই নারী মাদক ব্যবসায়ী আটক কক্সবাজারে টানা দুই দিনের ভারি বর্ষণে বন্যা ও পাহাড় ধসে ১৭ জনের মৃত্যু উখিয়ায় নিহত পরিবারের মাঝে নগদ টাকা ও খাদ্য সহায়তা প্রদান রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে বিভাগীয় কমিশনার বাঁকখালী-মাতামুহুরি অববাহিকায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, ২ লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি উখিয়ায় ৩ জনের মরদেহ উদ্ধার
নোটিশ :

আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বগতম>>তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে  সাথে থাকুন  ধন্যবাদ।

আবারো দীর্ঘ বিরোধ নিষ্পত্তি করে একের পর এক আস্থা অর্জন করছেন চেয়ারম্যান আবছার

জয়নাল আবেদীন টুক্কু / ২৯০ বার
আপডেট সময় : রবিবার, ২৮ জুন, ২০২০

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় ৫টি ইউনিয়নের মধ্যে সদর ইউনিয়নে অধিকাংশ এলাকায় বসবাসকারী মানুষের মধ্যে সীমানা বিরোধের জেরে মামলা-হামলার স্বীকার হয়েছে অনেক মানুষ। প্রতি মাসে থানা/কোর্টে মামলা করে সর্বশান্ত হয়েছেন অনেক পরিবার।

গত ১ মাসে বেশ কিছু বিরোধ নিষ্পত্তি করে একের পর এক মানুষের আস্থা অর্জন করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে যাচ্ছেন নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়ন পরিষদের তরুন চেয়ারম্যান নুরুল আবছার ইমন।

এলাকার অনেকের মতে, বিগত দিনে জনপ্রতিনিধিরা এই সমস্যাকে প্রধান্য দিলে নাইক্ষ্যংছড়িতে মামলা-হামলার ঘটনা কমে যেত।
শুক্রবার (২৭) মধ্যম বিছামারা সীমানা বিরোধের জেরে আহত হাসপাতালের কর্মচারী সোহাগের করা মামলার মধ্যস্থতা করে উভয় পক্ষের সীমানা নির্ধারণ করে দেন তিনি।এলাকাবাসী জনান, ১৯৮৬ সাল থেকে চলে আসা জি/১৬৬ হোল্ডিং এ বসবাসরত দিলরুবা ও শামসুল আলম (মিস্ত্রী) এর মধ্যে সীমানার বিরোধকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের হামলায় গুরুতর আহত হয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মচারী দিলরুবা সোলতানার স্বামী নাছের উল্লাহ খান সোহাগ (৩২)।এই ঘটনার জের ধরে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় অভিযোগ পর্যন্ত গড়ালেও এলাকাবাসীদের সাথে নিয়ে দফায় দফায় চেষ্টা করে দুই পক্ষকে এক করে ৩৬ বছরের বিরোধীয় এ সীমানা নির্ধারণ করলেন চেয়ারম্যান আবছার।সম্প্রতি করা মামলার বাদী নাছের উল্লাহ খান সোহাগ জানান,তার স্ত্রীর পৈত্রিক সম্পত্তি ও শামসুল আলম (মিস্ত্রি) এর সাথে আমার শশুরের আমল থেকে চলে আসা সীমানার বিরোধ নিষ্পত্তি হওয়ায় আমরা উভয় পক্ষ সন্তুষ্ট।ভুক্তভোগী দিলরুবা সোলতানা, স্থানীয় সোলতান আহমেদ ও সাবেক এম ইউপি মীর আহমদ সহ অনেকে জানান, দীর্ঘদিন ধরে এ সীমানা বিরোধকে কেন্দ্র করে নাইক্ষ্যংছড়ির বিভিন্ন জায়গায় মামলা-হামলার ঘটনা ঘটেছে।চেয়ারম্যান নুরুল আবছার এগিয়ে এসে বিভিন্ন জায়গায় এসব সমস্যা সামধান করায় চেয়ারম্যান কে ধন্যবাদ জানান। এই বিষয়ে সদর ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আবছার জানান, এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে বেশ কয়েকবার চেষ্টা করে উভয় পক্ষের সহযোগীতায় তাদের পরস্পরের এ বিরোধ নিষ্পত্তি করতে সক্ষম হয়েছি।আমার ইউনিয়নের প্রধান সমস্যা গ্রাম্য যোগাযোগ ও সীমানা বিরোধ। এলাকাবাসী যাতে মামলা-হামলা থেকে বাচঁতে পারে তার জন্য আমি দিনরাত চেষ্টা করে এসব সমস্যার সমাধানের চেষ্ঠা করছি। ভবিষ্যতে এসব সমস্যার সমাধান হলে এলাকাবাসী মামলা হামলা থেকে রেহাই পাবে।পাশাপাশি আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতিও উন্নতি হবে বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন। অপরদিকে মন্ত্রী মহোদয়ের হাত ধরে তিনি ধারাবাহিক উন্নয়নকে এগিয়ে নিয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নকে মডেল ইউনিয়ন হিসেবে পরিচিতি লাভ করা এটিই আমার কাম্য।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর