Logo
নোটিশ :

আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বগতম>>তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে  সাথে থাকুন  ধন্যবাদ।

পাঁচদিনেও হদিস নেই প্রবাসী আরিফের একদিন পর লাশ উদ্ধার মৎস্যজীবির

চকরিয়া প্রতিনিধি। / ২৪৮ বার
আপডেট সময় : রবিবার, ২১ জুন, ২০২০

 

কক্সবাজারের চকরিয়ার কোনাখালীতে মাছ ধরতে নেমে মাতামুহুরী নদীতে তলিয়ে গিয়ে নিখোঁজ থাকার একদিন পর মৎস্যজীবী মো. বাদশার (২৮) লাশ রবিবার সকালে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে পেকুয়া ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। আগেরদিন শনিবার চট্টগ্রাম থেকে ডুবুরীদল এসে নদীতে প্রায় সাতঘন্টা ধরে তল্লাশি চালালেও তার লাশ উদ্ধার করতে পারেনি।মারা যাওয়া বাদশা উপজেলার কোনাখালী ইউনিয়নের বাংলাবাজার খাসপাড়া এলাকার শামশুল আলমের ছেলে।কোনাখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান দিদারুল হক সিকদার পূর্বকোণকে জানান, নিখোঁজের একদিন পর মৎস্যজীবী বাদশার লাশ উদ্ধারের পর পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।এদিকে উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নের ডেইঙ্গাকাটাস্থ বরইতলী ছড়ার ওপর থাকা বাঁশের সাঁকো দিয়ে পারাপারের সময় খরস্রোতা খালে পড়ে গিয়ে আজ রবিবার (২১ জুন) বেলা দুইটা থেকে নিখোঁজ রয়েছে মারুফা জন্নাত নামের ৬ বছরের এক শিশু। চকরিয়া ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ওই শিশুর খোঁজে ছড়াখালে তল্লাশি চালালেও সন্ধান মেলেনি।নিখোঁজ শিশু মারুফা জন্নাত বরইতলী ইউনিয়নের এক নম্বর ওয়ার্ডের ডেইঙ্গাকাটা গ্রামের জিয়াবুল হকের মেয়ে।

বরইতলী ইউনিয়নের সমাজকর্মী আনিসুল ইসলাম ফারুকী জানান, নিখোঁজ মারুফাসহ দুই বান্ধবী মিলে ছড়াখালের সাঁকো পার হচ্ছিল। এ সময় পা পিছলে দুইজনই খালে পড়ে গেলে একজন কোনমতে প্রাণে বাঁচলেও মারুফা তীব্র স্রোতে পড়ে তলিয়ে যায়। এর কিছুক্ষণ পর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে খালে তল্লাশি চালালেও খোঁজ মেলেনি মারুফার।এ সময় খালের পাড়ে শত শত উৎসুক মানুষের ভিড় জমে যায়।অপরদিকে গত বুধবার (১৭ জুন) বিকেল চারটার দিকে মাতামুহুরী নদীতে ভেসে আসা লাকড়ি ধরতে গিয়ে নদীতে তলিয়ে যাওয়ার পর পাঁচদিন পার হলেও এখনো তার হদিস মিলেনি মালয়েশিয়াফেরত আরিফুল ইসলামের (২৫)। পাহাড়ি ঢলের পানির সাথে উজান থেকে নেমে আসা লাকড়ি শখ করে ধরতে নেমেছিলেন তিনি। এখনো তার সন্ধান না পাওয়ায় পরিবারে শোকের মাতম চলছে।চকরিয়া পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম জানান, ধারণা করা হচ্ছে নদীতেই প্রবাসী যুবক আরিফের সলিল সমাধি হয়ে গেছে।

পাঁচদিন ধরে নিখোঁজ আরিফ পৌরসভার এক নম্বর গাইড বাঁধ এলাকার সিরাজুল ইসলামের ছেলে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর