Logo
নোটিশ :

আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বগতম>>তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে  সাথে থাকুন  ধন্যবাদ।

হাটহাজারীর গুচ্ছগ্রামের সন্ত্রাসি কামাল গ্রেপ্তার

মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম হাটহাজারী। / ২২৮ বার
আপডেট সময় : রবিবার, ৩১ মে, ২০২০

 

হাটহাজারী পৌরসভার আদর্শগ্রাম এলাকার ত্রাস কামাল হোসেন (৪৫) প্রকাশ মদতি কামালকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার (৩১মে) বিকেলে পৌরসভার আদর্শগ্রাম এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আাটককৃত কামাল আদর্শগ্রামের মৃত বজল আহমদের পুত্র । তার বিরুদ্ধে হাটহাজারী মডেল থানায় জায়গা দখল সহ বিভিন্ন অভিযোগে একাধিক মামলা ও অভিযোগ রয়েছে বলে থানা সুত্র জানিয়েছে। আদর্শগ্রামে প্রায় ডজনের অধিক হামলা,ভাংচুরের ঘটনারও মুল হোতা সন্ত্রাসী কামাল। সন্ত্রাসী কামাল ইতিপূর্বেও নারী নির্যাতন মামলায় ৪ বছরের মত জেলহাজত খেটেছে। জামিনে এসে সরকারি দলের নাম ভাঙ্গিয়ে তার সন্ত্রাসী কর্মকান্ড মাত্রাতিরিক্ত বেড়ে গেছে বলে এলাকাবাসির অভিযোগ। কিশোর গ্যাং ব্যবহার করে সন্ত্রাসী কর্ম করা সহ কামালের বিভিন্ন সন্ত্রাসের কারনে গুচ্ছগ্রাম এলাকাটি সন্ত্রাসের জনপদ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে।
মামলার অভিযোগে প্রকাশ পবিত্র শবে কদরের দিন গভীর রাতে বখতিয়ারের নেতৃত্বে মদতি কামাল সহ একদল সন্ত্রাসী আলমপুর এলাকার এক ব্যবসায়ির ১৫টি মেহগনি গাছ কেটে জায়গা দখল করার জন্য সন্ত্রাসি তান্ডব চালায়। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ি ইয়াছিন চৌধুরী বাদি হয়ে হাটহাজারী মডেল থানায় ৫জনের নাম উল্লেখ করে ১৪/১৫জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে মামলা রুজু করেছেন।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, কামাল প্রকাশ মদতি কামাল আদর্শগ্রামের জন্য সাক্ষাৎ ভয়ংকর দানব। দীর্ঘদিন ধরে সে পাহাড়ী এলাকায় থেকে তার রাজত্ব কায়েম করতে নানান সন্ত্রাসী কৌশলের আশ্রয় নেয়। তার নেতৃত্বে জায়গা দখল, পহাড়ের মাটি কাটা, বন বিভাগের গাছ কাটা, এলাকায়, চাঁদাবাজি সহ নানা অপকর্মের অভিযোগ রয়েছে এলাকায়। এ সন্ত্রাসি নিজের প্রয়োজনে এলাকার কথিত যুবলীগ সহ শেখ রাসেল সংগঠনের নাম ভাঙ্গিয়ে স্থানীয় কিশোর গ্যাংদের ব্যবহার করে নানা সন্ত্রাসি অপকর্মে জড়িয়ে দেয়। ওই এলাকায় কামালের ভয়ে কেউ কিছু বলতে পারেনা। ভয়ে আতংকে দিন কাটে অনেকেই। তার সাথে জড়িয়ে সিন্ডিকেট করে বিএনপির কথিত নেতা খালেক সহ এ গ্যাংদের নিয়ন্ত্রন করে। বন বিভাগের বাগান থেকে রাতের আধারে কাঠ পাচারের ভাগ ভাটোয়ারা করে কামাল গং। নানা অপকর্মের হোতা কামাল এর মাধ্যমে সংগঠিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের কারনে আদর্শ গ্রাম সন্ত্রাসি জনপদ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে।
স্থানীয় এলাকায় কোন সমস্যা হলে প্রশাসনের মধ্যস্থতার কথা বলে উভয় পক্ষ থেকে টাকা হাতিয়ে নেয়া তার পেশা । কামাল তার ছেলে আরমানকে দিয়ে নিয়ন্ত্রন করে কিশোরগ্যাংয়ের সদস্যদের। একাধীক অভিযোগ থাকার পরেও আরমান ধরাছোঁয়ার বাইরে। এক কথায় কামাল ত্রাসের রাজত্ব তৈরী করতে ক্ষমতাসীন দলের নাম ভাঙ্গিয়ে বিএনপি কথিত নেতা খালেক সহ সিন্ডিকেট তৈরী করে পুরো এলাকার পরিবেশ নষ্ট করার অভিযোগে প্রকাশ। আদর্শগ্রামে প্রায় ডজনের অধিক হামলা,ভাংচুরের ঘটনারও মুল হোতা সন্ত্রাসী কামাল। সন্ত্রাসী কামাল ইতিপূর্বে নারী নির্যাতন মামলায় ৪বছরের মত জেলহাজত খেটেছে। পরে জামিনে এসে ক্ষমতাসীন দলের শ্রমিক সংগঠনের নাম ব্যবহার করে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড বেড়ে যায় তার। সন্ত্রাসী কামালের বিরোদ্ধে গুচ্ছগ্রামের জোসনা নামের এক মহিলাও তার পোল্ট্রি ফার্ম ভাংচুরের অভিযোগ করেছেন থানায়। সন্ত্রাসী কামালের কঠোর শাস্তির দাবি জানান এলাকার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ভূক্তভোগি মানুষ।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও হাটহাজারী মডেল থানার এস আই মো: সেলিম গতরাতে এ প্রতিবেদককে বলেন, একটি সন্ত্রাসি ঘটনার মামলায় সন্ত্রাসী কামাল গতকাল রোববার সন্ধ্যার আগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ রয়েছে থানায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর