Logo
শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে স্কাসের কার্যক্রম পরিদর্শন করলেন উপআনুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো ডিজি ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দেশীয় অস্ত্রসহ ১৪ রোহিঙ্গা গ্রেপ্তার উখিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় গ্রাম্য চিকিৎসক আহত নেতাকর্মীদের ভালোবাসায় সিক্ত এম এ মন্জুর ভালোবাসায় সিক্ত হন অধ্যক্ষ মো. শাহ আলম নৌকার মনোনয়ন নিয়ে এসে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত চেয়ারম্যান টিপু সুলতান রাজাপালংয়ে নৌকার প্রার্থী জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর সমর্থনে শোকরানা ও পথ সভা অনুষ্ঠিত খরুলিয়ার গণি বৈরাগী সোয়া ৯ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেফতার উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে আবারো প্রার্থী হয়েছি : ইঞ্জিনিয়ার হেলাল উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ
নোটিশ :

আমাদের ভুবনে আপনাকে স্বগতম>>তথ্য নির্ভর সংবাদ পেতে  সাথে থাকুন  ধন্যবাদ।

সশস্ত্র রোহিঙ্গাদের বাধার মুখে গুলিবর্ষণ করে পিছু হটতে বাধ্য হলেন সিআইসি : আটক -১

উখিয়া কন্ঠ  ডেস্ক / ৩৮৯ বার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২৮ মে, ২০২০

সশস্ত্র রোহিঙ্গাদের বাধার মুখে গুলিবর্ষণ করে পিছু হটতে বাধ্য হলেন উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও তার সঙ্গের ফোর্স। বৃহস্পতিবার দুপুরে ক্যাম্পের অভ্যন্তরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করতে গে‌লে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় এক রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়েছে বলে জানা গেছে। রোহিঙ্গাদের ছোঁড়া ইটপাটকেলের আঘাতে ম্যাজিস্ট্রেটসহ ৩ জন আহত হয়েছে।

স্থানীয় রোহিঙ্গারা জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে উখিয়ার কুতুপালং মেগা ৪টি ক্যাম্পের দায়িত্বপ্রাপ্ত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (সিআইসি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপ সচিব মোঃ খলিলুর রহমান খান ২ /ইস্ট নং ক্যাম্পে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে যান। ২/ইস্ট ও ৭ নং ক্যাম্পের সীমানা উখিয়া টিভি রিলে কেন্দ্রের পশ্চিমে কিছু রোহিঙ্গা নতুনভাবে বাজার বসানোর জন্য স্থাপনা বানাচ্ছিল।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কুতুপালং ক্যাম্পের এক কর্মচারী জানান, ক্যাম্পের একটি চিহ্নিত সন্ত্রাসী গ্রুপের তত্বাবধানে নতুনভাবে বাজার বসানোর কাজ করছিল শতাধিক রোহিঙ্গা। সেখানে কাঁচা দোকানের পাশাপাশি ইট দিয়ে সেমিপাকা দোকানও নির্মাণ করা হচ্ছিল। কুতুপালং ক্যাম্পের সিআইসির নেতৃত্বে পুলিশ ও  ব্যাটালিয়ান আনসারসহ রোহিঙ্গা ভলেন্টিয়াররা এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করতে যান।রোহিঙ্গারা জানান, সিআইসি ২/ইস্ট ক্যাম্পের ডি- ব্লকে গিয়ে বাজারের স্থাপনা উচ্ছেদ করতে চাইলে সন্ত্রাসীরা তাকেসহ আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যদের ঘিরে ফেলে। এরপরও সিআইসি উচ্ছেদ অভিযান চালিয়ে যেতে চাইলে চর্তুদিক থেকে ঘিরে তাদের ওপর ইট পাটকেল ছুঁড়তে শুরু করে। এ সময় অবস্থা বেগতিক দেখে কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়তে ছুঁড়তে সিআইসি পিছু হটে ফিরে যান। এসময় সিআইসি ও আইন শৃংখলাবাহিনীর ২ সদস্য আহত হন।হামলার শিকার উখিয়ার কুতুপালং (পূর্ব) ক্যাম্পের সিআইসি (ইনচার্জ) ও উপ সচিব মোহাম্মদ খলিলুর রহমান খান বলেন, ‘বৃহস্পতিবার দুপুরে ক্যাম্পের ভেতরে অবৈধভাবে ইট দিয়ে কিছু রোহিঙ্গা দোকান নির্মাণ করেছিল। এসময় বাঁধা দিলে কেউ কথা শুনেনি। পরে আনসার বাহিনী ও ভলেন্টিয়ার নিয়ে ক্যাম্পের অবৈধভাবে নির্মাণ করা দোকানের দেয়াল ভেঙে দেওয়া হয়। এসময় ২০-৩০ জন রোহিঙ্গার একটি দল দা, ছুরি , ইট ও লাঠিসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমাদের ওপর হামলা চালায়।  তাদের হামলায় কয়েকজন ভলেন্টিয়ার আহত হয়। পরে  আনসার বাহিনীর সদস্যরা কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলিবর্ষণ করলে তারা পালিয়ে যায়।উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নিকারুজ্জামান চৌধুরী জানান, ক্যাম্পে সরকারি দায়িত্ব পালনকারী সিআইসিসহ আইনশৃংখলা বাহিনীর ওপর রোহিঙ্গারা হামলা করেছে। এঘটনায় একজন রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়েছে।হামলাকারীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলে জানিয়েছেন কক্সবাজার জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুুুপার ইকবাল হোসেন।

 

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর